1. admin@dainikdesherkontho.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন

এই সময় কলা খেলে কী হয়? কারিনার পুষ্টিবিদ জানালেন

দৈনিক দেশের কন্ঠ
  • Update Time : শনিবার, ২৭ মার্চ, ২০২১
  • ৪৩ Time View

লাইফস্টাইল ডেস্ক | পাকা কলা সবাই কমবেশি খেয়ে থাকেন। বিশেষ করে সকালের নাস্তায় কলা খেয়ে থাকেন অনেকেই। গরমে কলা খাওয়া উচিত কি-না? বা খেলে কী হয়? এসব বিষয়ে মনে স্বভাবতই প্রশ্ন জাগে! বিশেষ করে যারা ওজন কমানোর রেসে দৌড়াচ্ছেন; তাদের জন্য বিষয়টি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

কলায় থাকা পুষ্টিগুণ শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার সমাধান ঘটায়। ওজন কমানো থেকে শুরু করে কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যা সবই সমাধান করে কলা। পাশিপাশি প্রচুর ফাইবার থাকায় দীর্ঘক্ষণ পেটও ভরিয়ে রাখে কলা।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে বলিউড সেলিব্রিটি ডায়েটিশিয়ান রুজুতা দিওয়েকর এ সময় কলা খাওয়ার উপকারিতা এবং কখন খাওয়া উচিত সে সম্পর্কে পরামর্শ দিয়েছেন। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

কারিনা, কারিশমা ক্যাটরিনা, আলিয়া, দীপিকাসহ বলিউড নায়িকাদের ডায়েটিশিয়ান রুজুতা। তাদের স্লিম ফিগার এবং সুস্থ থাকার পিছনে রুজুতার পরামর্শ আছে। এ ডায়েটিশিয়ান জানান, গ্রীষ্মের সময়ে আমাদের প্রতিদিনের ডায়েটে কলা অন্তর্ভুক্ত করতে পারি।

রুজুতা পরামর্শ দিয়েছেন যে, সকালে ওয়ার্কআউটের আগে এবং পরে মিনি মিল হিসাবে কলা খাওয়া উচিত। তিনি আরও পরামর্শ দিয়েছেন, কলা মিল্ক শেক, ভ্যাকরি (কলা ময়দা দিয়ে তৈরি) এবং আরও অনেকভাবেই খাওয়া যেতে পারে।

>> দিন শুরু করুন কলা খেয়ে। এটি কম অ্যাসিডসমৃদ্ধ আদর্শ এক ফল। রোগড় প্রতিরোধ ক্ষমতাসহ মাইগ্রেন সমস্যা থেকে আমাদের রক্ষা করে। এমনকি পায়ে ব্যথা এড়ানো যায়।

>> সকাল এবং দুপুরের মাঝামাঝি সময়ে একটি হতে পারে আপনার মিড ডে মিল। হাইপোথাইরয়েডিজম হলো শরীরের একটি অবস্থা যখন শরীর পর্যাপ্ত থাইরয়েড হরমোন উত্পাদন করে না। এটি প্রমাণিত যে, কলা খাওয়ার পরেই শরীরে অ্যানার্জি পাওয়া যায়, যা হাইপোথাইরয়েডিজম-সহ আসে। এর ফলে মেজাজ ভালো থাকে। শরীরে শক্তি রাখে।

>> রুজুতার মতে দুধ, চিনি এবং রুটির সঙ্গে কলা একটি ট্রেডিশনাল খাবার। এটি মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের ব্যথা হলে উপশম করে। এটি বাচ্চাদের জন্যও ভালো। কারণ এটি দ্রুত হজম হয়।

>> কলায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে, যা কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয়। এছাড়াও, কলাতে ফ্রুক্টোজ নিম্ন স্তরের রয়েছে, যা বাউয়েল সিনড্রোম নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

>> রুজুতা জানান, আপনি যদি সারা দিনে অল্প পরিমাণ খাবার খাওয়ার অভ্যাস করেন; তবে অবশ্যই ডায়েটে কলা দুধের শেক রাখুন। আপনি যদি ওয়ার্কআউট করেন; তারপর কলার শেক খেতে ভুলবেন না।

>> কলা খেলে হজমক্ষমতা বাড়ে। এজন্য রুজুতা জোর দিয়ে বলেন, কলা অবশ্যই খাওয়া উচিত। কলা কেনার আগে খেয়াল রাখবেন তা যেন ফরমালিন ছাড়া হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It