1. admin@dainikdesherkontho.com : admin :
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন

দিল্লির বহু হাসপাতাল অক্সিজেন সংকটে

দৈনিক দেশের কন্ঠ
  • Update Time : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫৩ Time View

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক | মহামারি করোনাভাইরাস মরণ কামর বসিয়েছে ভারতে। ভারতে বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটিতে সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে অন্তত ২৩০০ জনের। এমনবস্থায় রাজধানী দিল্লির অন্তত ছয়টি হাসপাতালে শেষ হয়ে এসেছে অক্সিজেনের মজুত।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, অক্সিজেনের অপেক্ষায় থাকা অনেক রোগী মারা যাচ্ছে দেশটিতে। বাকী হাসপাতালগুলোতেও যে অক্সিজেন আছে তা দিয়ে চলবে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) শয্যাগুলোরও ৯৯ শতাংশ রোগী দিয়ে পূর্ণ।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩ লাখ ৩২ হাজার মানুষ। যা বৃহস্পতিবারের তুলনায় ১৭ হাজার বেশি। এই নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশটিতে ১ কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন।

এছাড়া বৃহস্পতিবার দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ হাজার ১০২ জনের মৃত্যুর কথা জানানো হলেও শুক্রবার সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২৬৩ জনে যা মৃত্যুতেও নতুন রেকর্ড হয়েছে। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৮৬ হাজার ৯২০ জনে। এর আগে ভারতে গত বছরের ১৬ জুন এক দিনে সর্বোচ্চ ২ হাজার ৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

এনডিটিভি জানিয়েছে, অন্যান্য রাজ্যের জন্য নির্ধারিত অক্সিজেন বহনকারী ট্যাংকারগুলো দিল্লির রাজ্য কর্তৃপক্ষ আটকে দিচ্ছে। বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান অক্সিজেন মজুত করে রেখেছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

কোভিডে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভারতীয় রাজনীতিক সৌরভ ভরদ্বাজ টুইটারে হিন্দিতে লেখা এক বার্তায় অক্সিজেনের জন্য সহায়তা চেয়ে বলেছেন, তিনি যে হাসপাতালে আছেন সেখানে মাত্র তিন ঘণ্টার অক্সিজেন মজুত আছে।
রাজধানী নয়াদিল্লিসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যের হাসপাতালে একেবারেই অক্সিজেন নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে ভেঙে পড়েছে চিকিৎসা ব্যবস্থা।

এ অবস্থায় দেশটিতে ট্রিপল মিউট্যান্ট বা তিনবার রূপ পরিবর্তনকারী তিনগুণ বেশি শক্তিশালী নতুন করোনার সন্ধান মিলেছে। যা টিকা নিলেও প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়।
খোদ স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, যে পরিমাণ অক্সিজেন দরকার তার কিছুই নেই তাদের কাছে। চরম সংকটের কারণে দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। দুই হাজারের বেশি মানুষ প্রতিদিন মারা যাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It